গোধূলি নন্দনে // শ্যামল কুমার রায়

 

 

এক অচিন গাঁয়ের শ্যামলা মেয়ে

নন্দনেতে এল।

মস্ত বড়ো প্রাসাদ দেখে

থমকে দাঁড়ালো।

বিদ্যের দৌড়?

খুব খারাপ ছিল না তার,

এম এ তে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট,

জঙ্গল মহল থেকে।

ফ্লাইওভারের কথা?

পড়েছিল বইয়েতে।

আল পথে চলা-

যার নিত্য অভ্যেস,

গতিময় শহরেতে

হোঁচট খেলো বেশ।

মেরুন রঙের শাড়িতে

সেজে ছিল বেশ

দেহ ঢাকা ব্লাউজে

ছড়িয়ে বিন্যস্ত কেশ।

রক্ষণশীল বাড়ির

শিক্ষিত মেয়ে সে।

হাত ধরাধরি করে

তরুছায়ায় থাকে না সে।

ঘোর লেগে গেল,ওর চোখেতে,

মিনিস্কার্টে ধোঁয়া ওড়ানো

কেতাদুরস্ত সমাজেতে।

যৌনতা? বড় সস্তা এ সমাজেতে-

রেখে ঢেকে পোশাক পরা?

বড় সেকেলে,এ সমাজেতে!

কিন্তু এ ভিন গ্রহেরই তারা

উদ্ভাসিত বাংলা আকাদেমিতে-

ভিড়ে ঠাসা জীবনানন্দ সভাগৃহতে।

করতালিতে মুখরিত বুদ্ধিজীবির দল

ওর ওই দীপ্ত কণ্ঠে উচ্চারিত

স্বরচিত কবিতার দল।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top